Current Bangladesh Time
শনিবার জুন ৬, ২০২০ ১:৫০ অপরাহ্ণ
Latest News
প্রচ্ছদ  » স্লাইডার নিউজ » পরকীয়ায় ঝালকাঠিতে নারী কনস্টেবলের আত্মহত্যা, পুলিশ স্বামী আটক! 
Saturday May 16, 2020 , 9:22 pm
Print this E-mail this

পারিবারিক কলেহের কারণে এ ঘটনাটা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে

পরকীয়ায় ঝালকাঠিতে নারী কনস্টেবলের আত্মহত্যা, পুলিশ স্বামী আটক!


মুক্তখবর ডেস্ক রিপোর্ট : ঝালকাঠিতে পুলিশ সহকর্মীর সাথে পরকীয়ার জেরে স্বামীর সাথে অভিমান করে এক নারী কনস্টেবল বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে নাদিয়া আফরিন নামে ওই কনস্টেবলের মৃত্যু হয়। তিনি ঝালকাঠি পুলিশ লাইন্সে কর্মরত ছিলেন বলে জানা গেছে। তাঁর স্বামী তরিকুল ইসলাম ও পরকীয়া প্রেমিক ফরহাদ একই স্থানে কনস্টেবল পদে কর্মরত রয়েছেন। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ লাইনের নারী ব্যারাকে বসেই নাদিয়া বিষপান করে বলে জানিয়েছেন তাঁর স্বামী তরিকুল ইসলাম। কিন্তু পুলিশ জানায়, নাদিয়া ভাড়াটিয়া বাসায় বসে বিষপান করেন। ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের স্টাফ সমির চক্রবর্তী বলেন, বিষ পানের পর বিকেল ৫টার দিকে প্রথমে ওই নারী পুলিশ সদস্যকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে আনা হয়। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাই। বরিশাল শের-ই বাংলা হাসপাতালের একটি সূত্র জানায়, নাদিয়া আফরিন নামের নারী কনস্টেবল বিষপানে অসুস্থ হয়ে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন। পরে তাঁকে ভর্তি করে মেডিসিন ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আড়াই ঘণ্টার মাথায় রাত ৮টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়। শেবাচিমে হাসপাতালে ডিউটিরত পুলিশ কর্মকর্তা মো: নাজমুল এই তথ্য নিশ্চিত করলেও নাদিয়া আফরিনের আত্মহত্যার কারণ বলতে পারছেন না।

পুলিশ কনস্টেবল তরিকুলের মা জেসমিন বেগম বলেন, নাদিয়া তরিকুলের ব্যাজমেট ছিলেন। গত তিন মাস আগে ঝালকাঠি পুলিশ লাইনে পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের আগে থেকেই নাদিয়ার আরেক ব্যাজমেট কনস্টেবল ফরহাদের সাথে নাদিয়ার প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। তাই এ বিয়ে মানতে পারেননি কনস্টেবল ফরহাদ। ফরহাদ তাদের আগের সম্পর্কের প্রমাণাদি দিয়ে ব্লাকমেইল করে আসছিল। এ ঘটনায় তরিকুল ও নাদিয়ার মধ্যে কলহ চলে আসছিল। এ ঘটনায় পুলিশ ফরহাদকে আটক না করে তরিকুলকে আটক করায় তিনি বিস্মিত হয়েছেন। ঝালকাঠি সদর থানার ওসি মো: খলিলুর রহমান বলেন, নারী পুলিশ সদস্যের আত্মহত্যার খবর আমিও শুনেছি। পারিবারিক কলেহের কারণে এ ঘটনাটা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) এম এম মাহামুদ হাসান জানান, স্বামীর সাথে নারী কনস্টেবলের গত দুই দিন ধরে পারিবারিক কলহ চলছিল। সেই জেরেই নাদিয়া বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর থানার অদূরে ভাড়া বাসায় বিষপান করেন। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রতিবেশীদের কাছে খবর পেয়ে স্বামী গিয়ে উদ্ধার করে প্রথমে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

Archives
Image
ঝালকাঠিতে কাভার্ডভ্যানভর্তি ৫৪ কেজি গাঁজাসহ রানা গ্রেপ্তার
Image
বরিশালে মাদ্রাসাশিক্ষকের গলায় জুতার মালা দেয়া সে-ই চেয়ারম্যান সহযোগীসহ কারাগারে
Image
বরিশালে মাদ্রাসার এক শিক্ষককে মানুষিক ও শারীরিক নির্যাতন, উদ্বিগ্ন মানবাধিকার!
Image
ঝালকাঠি আ’লীগের সম্পাদক পনির’র মাতার মৃত্যুতে তালুকদার মোঃ ইউনুস’র শোক
Image
ফের বাড়ছে সাধারণ ছুটি ও কড়া লকডাউন