Current Bangladesh Time
শনিবার জুন ৬, ২০২০ ২:১৮ অপরাহ্ণ
Latest News
প্রচ্ছদ  » সাব-লিড-১ » ঘুষের টাকাসহ নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রধান প্রকৌশলী ফখরুল ইসলাম গ্রেফতার 
Thursday July 20, 2017 , 2:09 am
Print this E-mail this

ঘুষের টাকাসহ নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের প্রধান প্রকৌশলী ফখরুল ইসলাম গ্রেফতার


মুক্তখবর ডেস্ক : ঘুষের ৫ লাখ টাকাসহ নৌ পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী ও শিপ সার্ভেয়ার একেএম ফখরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশনের একটি দল। মঙ্গলবার নৌ পরিবহন দফতরে ঘুষ গ্রহণকালে তাকে আটক করা হয় বলে জানান দুদকের সহকারী পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বলেন, বেলা দুইটার দিকে বিআইডব্লিউটিআই অফিস থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে তাকে আটক করা হয়।
ঘুষ গ্রহণের ঘটনায় নৌ পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি। দুদক কর্মকর্তা আরও জানান, বেঙ্গল মেরিন অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসেস’র জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য তিনি এই টাকা গ্রহণ করেছিলেন। ওই প্রতিষ্ঠানের অথরাইজড পার্সন এএনএম বদরুল আলমের কাছ থেকে ২০১২ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ২১টি জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য প্রতিটি জাহাজের জন্য আকারভেদে ৫-১৬ লাখ টাকা দাবি করেছিলেন ফখরুল ইসলাম। একটি জাহাজের নকশা অনুমোদনের জন্য তিনি ঘুষ গ্রহণ করেছিলেন। দুদকের সহকারি পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম জানান, নৌ পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অবৈধ পন্থায় অর্থ উপার্জনের বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে। একইসঙ্গে ইস্কাটনের শান্তা টাওয়ারের এ ও বি টেনের তিন কোটি টাকার ফ্ল্যাটে তার বিলাসবহুল জীবনযাপনেরও তথ্য রয়েছে দুদকের কাছে। এসব বিষয়ে তদন্ত চলবে বলে জানান তিনি। নৌ পরিবহন অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী ও শিপ সার্ভেয়ার একেএম ফখরুল ইসলাম এর ঘুষ বানিজ্য ও অনৈতিক কাজের অন্যতম সহযোগী হচ্ছে পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলার বৈঠাকাঠা গ্রামের মোঃ নান্না মিয়া। দীর্ঘদিন ধরে নান্না মিয়া একেএম ফখরুল ইসলাম-এর ঘূষ বানিজ্যের মাধ্যস্থতাকারী হিসেবে পিরোজপুর জেলার গাওখালী, বৈঠাকাঠা, স্বরুপকাঠী অঞ্চল, বরিশালের বানারীপাড়া ও বরিশাল অঞ্চলের বিভিন্ন নৌজানের নকশা ও ফিটনেস অনুমোদনের জন্য তদবির বানিজ্য করে আসছিলো। এ ছাড়াও নান্না মিয়া ঢাকায় বসে প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামের ঘুষ বানিজ্যের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এ সুযোগে মোঃ নান্না মিয়া নিজেও বিপুল অর্থ বিত্তের মালিক বনে গেছেন। বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রায় ১ কোটি টাকা খরচ করে স্বতন্ত্র হিসেবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করেছেন নান্না মিয়া। তার নিজেরে মালিকানায় রয়েছে বেশ কয়েকটি লঞ্চ, ট্রলার ও কার্গো। এলাকায় প্রবাদ আছে প্রকৌশলী ও শিপ সার্ভেয়ার একেএম ফখরুল ইসলাম এর টাকায় তৈরী অন্তত দুটি বড় কার্গো মোঃ নান্না মিয়ার নামে নিবন্ধ করে চলাচল করছে। নান্না মিয়ার গ্রামের বাড়ীতে বেশ কয়েকবার বেড়াতেও গেছেন একেএম ফখরুল ইসলাম। শুধু তার জন্যেই নান্না মিয়া নিজ বাড়ীতে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত একটি কক্ষ করে রেখেছেন বলেও জানায় এলাকাবাসী। গত বছরে মোঃ নান্না মিয়া ও একেএম ফখরুল ইসলাম একই সাথে হজ্জ পালন করে এসেছেন বলেও জানা গেছে। অনুসন্ধানে আরো জানা গেছে, প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামের স্ত্রী মহসীনা ইসলামের নামে উল্লেখিত নান্না মিয়ার নিজ এলাকা বৈঠাকাঠা বাজারের মনু মিয়ার বাড়ীর পাশে এবং শানু মেম্বরের বাড়ীর পাশে ১০ শতাংশ জমি রয়েছে যার বর্তমান বাজার মুল্য আনুমানিক ১ কোটি টাকা। এ ছাড়া প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামের মালিকানায় স্বারুপকাঠী থানার পিছনে একটি ডক ইয়ার্ডে ২ টি জাহাজের নির্মান কাজ চলছে এবং স্থানীয় মিয়ারহাট বাজার টু পয়সার হাট বাজার পর্যন্ত আনন্দ, রাজ মুকুট, শুকতারা নামে ৩ টি যাত্রী বাহী লঞ্চ চলাচল করছে। এ ছাড়াও প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামের মালিকানায় বড় ৮ টি স্টীল বডি খোলা ট্রলার পরিবহন কাজে চলা চল করছে স্বরুপকাঠীতে। প্রকৌশলী ফখরুল ইসলাম এর মালিকানায় থাকা এসব সম্পদ, লঞ্চ, কার্গো, ট্রলার দেখাশুনা করেন তার ঘুষবানিজ্যের সহযোগী মোঃ নান্না মিয়া। প্রকৌশলী ফখরুল ইসলামকে গ্রেফতার অভিযানে নেতৃত্বে দেন দুদকের ঢাকা বিভাগীয় পরিচালক নাসিম আনোয়ার। অভিযানে অংশ নেয়া অন্যদের মধ্যে ছিলেন দুদকের ঢাকা-১ এর উপ পরিচালক মো. ইব্রাহিম, সহকারী পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম, মো. আব্দুল ওয়াদুদ, মো. মনিরুল ইসলাম, নুর-ই আলমসহ মোট ৯ সদস্যেও একটি টিম।

Archives
Image
বরিশাল র‌্যাব-৮’র অভিযান, ইয়াবাসহ দুই মাদক বিক্রেতা গ্রেপ্তার
Image
বরিশালের মুলাদীতে স্বামীর সাথে ঝগড়া করে স্ত্রীর আত্মহত্যা, স্বামী আটক
Image
ঝালকাঠিতে কাভার্ডভ্যানভর্তি ৫৪ কেজি গাঁজাসহ রানা গ্রেপ্তার
Image
বরিশালে মাদ্রাসাশিক্ষকের গলায় জুতার মালা দেয়া সে-ই চেয়ারম্যান সহযোগীসহ কারাগারে
Image
বরিশালে মাদ্রাসার এক শিক্ষককে মানুষিক ও শারীরিক নির্যাতন, উদ্বিগ্ন মানবাধিকার!